Ads

চলমান নতুন পোস্ট

পিঁয়াজ তেল ব্যবহারে চুল পড়া বন্ধ হয় ৭ দিনে - নতুন চুল গজাবে - ৩টি উপায়ে

কি করলে মাথার চুল পড়া বন্ধ হবে ? 

পিঁয়াজ তেল ব্যবহারে চুল পড়া বন্ধ হয় ৭ দিনে নতুন চুল গজাবে ৩টি উপায়ে
পিঁয়াজ তেল ব্যবহারের গুনাবলী দেখুন।

পিঁয়াজ, নারিকেল তেল এবং কালোজিরার মিশ্রনে তৈরী এই তেলটি সপ্তাহে তিন দিন সূরাতুল ফাতিহা পড়ে মাথায় ব্যবহার করলে, ইনশাআল্লাহ চুল পড়া বন্ধ হয়ে যাবে।

খুবই কার্যকরী এই পিঁয়াজ তেল তৈরী করার প্রক্রিয়াটি আজকের এই পোষ্টে আলোচনা করবো, ইনশাআল্লাহ ।



প্রিয় বন্ধরা ! আপনারা ঘরে বসেই তৈরী করতে পারবেন এই তেল।

যদি আপনারা সপ্তাহে তিন দিন ১৫ থেকে ২০ মিনিট সময় নিয়ে মাথায় ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে তেলটি মাসাজ করে লাগান তাহলে ইনশাআল্লাহ আপনার চূল পড়া বন্ধ হবে এবং দ্রুত মাথায় নতুন চুল গজাবে ইনশাআল্লাহ। সেক্ষেত্রে অবশ্যই সূরা ফাতিহার সাথে এই আমলটি করবেন।

এই তেলটি তৈরির উপাদান গুলো কি কি 

এই তেলটি তৈরি করার জন্য আমরা প্রধান উপাদান হিসাবে ব্যবহার করবো পিঁয়াজ,  কেননা পিঁয়াজে রয়েছে প্রচুর পরিমানে সালফার। 

এই তেলটি তৈরির উপাদান কি কি
একটি পিঁয়াজে প্রচুর পরিমান পুষ্টি উপাদান রয়েছে

যা আমাদের চুল পড়া রোধ করে এবং নতুন চুল গজাতে অত্যান্ত সহায়ক। এছাড়াও আমরা ব্যবহার করবো কালোজিরা। এটি আমাদের মাথার ত্বককে সব ধরনের ইনফেকশন থেকে প্রতিরোধ করবে এবং দ্রুত নতুন নতুন চল গজাতে সাহায্য করবে।আমরা আরো ব্যবহার করবো নারিকেল তেল, যা আমাদের ময়েশ্বারাইজড রাখবে।

পিঁয়াজ-নারিকেল-তেল-কালোজিরা
পিঁয়াজ-নারিকেল-তেল-কালোজিরা

উপরে বর্ণিত এই তিনটি উপাদান ব্যবহার করেই আমরা আজকে তেলটি তৈরি করবো, ইনশাআল্লাহ।


উপাদানগুলো সম্পর্কে তো জানলাম, এবার চলুন জেনে নেয়া যাক তেল তৈরির বিস্তারিত প্রক্রিয়াটি সম্পর্কে



তেলটি তৈরির জন্য প্রথমত একটি বাটিতে প্রয়োজন মতো পিঁয়াজ কেটে নিতে হবে। আপনি ৫টি মাঝারি মাপের পিঁয়াজ কেটে নিতে পারেন।

এরপর অন্য একটি বাটিতে নারিকেল তেল নিতে হবে। নারিকেল তেল আর পিঁয়াজ এর অনুপাত যেনো সমান হয় সে দিকে অবশ্যই লক্ষ রাখতে হবে। অর্থাৎ আপনি যদি এক বাটি পিঁয়াজ কাটেন, তাহলে নারিকেল তেলও দিবেন এক বাটি। পিঁয়াজ আর তেল নেওয়ার পর আপনারা কালোজিরা নিবেন। কালোজিরা নেওয়ার ক্ষেত্রে কোন প্রকার বাধা নিয়ম নেই। আপনারা আপনাদের ইচ্ছা অনুযায়ী ১ থেকে ২ চামচ নিতে পারেন।

পিঁয়াজ-নারিকেল-তেল-কালোজিরা
পিঁয়াজ-নারিকেল-তেল-কালোজিরা

এরপর যা করবেন !

একটি তুলনামূলক বড় ধরেনের স্টিলের বাটি নিন তেল গরম করার জন্য। বাটির ভেতর প্রথমে তেল ঢালুন তারপর ঢালুন পিঁয়াজ গুলো। এবং সব শেষে তেল আর পিঁয়াজ রাখা বাটির মাঝে কালোজিরা গুলো দিয়ে দিন। তার পর চামচ দিয়ে নেড়ে-চেড়ে উপাদানগুলোর মিশ্রন করুন।

কি করলে মাথার চুল পড়া বন্ধ হবে
www.tipscyber.com

এরপর একদম অল্প আঁচে বাটিটি চুলায় গরম করতে দিন। ঠিক ততক্ষন সময় পর্যন্ত গরম করুন যতক্ষণ পর্যন্ত না পিঁয়াজগুলোর রং বাদামি হচ্ছে।

গরম করার সময়ও আপনারা চামচ দিয়ে মিশ্রনটিকে নেড়েচেড়ে দিবেন। এরপর মিশ্রনটির ক্ষেত্রে আচঁ দেওয়ার পর আধা ঘন্টার মতো সময় লাগতে পারে। আপনারা পিঁয়াজ গুলোর রং বাদামি হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন।

chul pora bondho korar tips

আপনাদের মিশ্রনগুলো এরকম বাদামি রং ধারন করার পরই চুলা থেকে নামিয়ে ফেলুন এবং সেগুলোকে ঠান্ডা হওয়ার জন্য রেখে দিবেন।

ঘন্টাখানেক পর যখন মিশ্রণটি ঠান্ডা হয়ে যাবে, তখন দেখবেন তেলের গরমে পিঁয়াজগুলোর রং কালো হয়ে গেছে। 

এর পর মিশ্রনটিকে একটি কাঁচের গ্লাসে পরিস্কার ছাঁকনি বা কাপড় দিয়ে ছেঁকে নিন। এটিকে সংরক্ষণের ক্ষেত্রেও কিন্তু কাঁচের গ্লাস বা জগ ব্যবহার করতে পারেন।

এইতো ! তৈরি হয়ে গেল আপনার পেঁয়াজের  নির্যাস থেকে তৈরি তেল।

পিঁয়াজ তেল ব্যবহারে চুল পড়া বন্ধ হয়
বিস্তারিত জানুন; www.tipscyber.com

এই তেলটি আপনারা ইচ্ছা করলে ৬ মাস সময় পর্যন্ত সংরক্ষণ করতে পারবেন। প্রতি সপ্তাহে কমপক্ষে ৩ দিন করে এই তেলটি ব্যবহার করবেন।


তেল ব্যবহারের পূর্বে যে দোয়াটি পড়ে ব্যবহার করবেন !

এটি ব্যবহারের পূর্বে সূরাতুল ফাতিহা এবং দরুদ শরীফ পড়বেন। কেননা সূরাতুল ফাতিহাকে বলা হয় সূরাতুস শিফা বা রোগ মুক্তির সূরা।

১৫ থেকে ২০ মিনিট সময় সময় নিয়ে, সমস্থ মাথায় ভালো করে মাসাজ করে তেলটি ব্যবহার করবেন। তেলটি যদি আপরনা এই নিয়মে এক মাসও ব্যবহার করে দেখেন তাহলেই কিন্তু আপনারা নিজের চুলের উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন দেখতে পারবেন, ইনশাআল্লাহ



ধন্যবাদ সবাইকে,

এইধরনের আরো নতুন নতুন Bangla Health Tips, ইসলমিক স্বাস্থ সচেতন মূলক তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজট করবেন।

কোন মন্তব্য নেই

Welcome to https://www.tipscyber.com
And Thanks for visiting our website.