Ads

চলমান নতুন পোস্ট

নাটোর জেলায় এসে বঙ্গ-দেশের-কথা | Natore District History

নাটোর জেলা পরিচিতি,নাটোর জেলার খবর,নাটোর জেলা ইউনিয়ন,নাটোর জেলা প্রশাসক,নাটোরের বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গ,নাটোর জেলার লালপুর থানা,নাটোরের বিখ্যাত খাবার,নাটোর জেলার নামকরণের ইতিহাস,নাটোর জেলা প্রশাসক,নাটোরের বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গ,নাটোর জেলা কেন বিখ্যাত,নাটোরের বিখ্যাত খাবার,নাটোর জেলার দর্শনীয় স্থান,নাটোর জেলার খবর,নাটোর কিসের জন্য বিখ্যাত,নাটোর জেলার লালপুর থানা,natore zamindar,natore rajbari picture,bengali zamindars list,banalata sen poem pdf, bonolota sen poem summary in bengali,bonolota sen picture,natorer bonolota sen photo,bonolota sen kabyagrantha,banalata sen quotes,banalata sen poem in english,banalata sen recitation,
নাটোর জেলা | Natore District History👈


বাংলাদেশের ইতিহাসের নাটোর জেলায় একটি অন্যতম নাম। নাটোরের ইতিহাস শুধু আমাদের দেশেই নয়, সভ্য দুনিয়ার সকল দেশে তার স্বতন্ত্র পরিস্থিতি আছে।

 নাটোর রাজবাড়ি মুঘল শাসন আমলের শেষ দিকে বাংলার ক্ষমতার অন্যতম প্রাণকেন্দ্র পরিণত হয়। বিশেষ করে নবাবী আমলে তার ব্যাপক ব্যাপ্তি ঘটে । সুবেদার মুর্শিদ কুলী খানের (১৭০১-১৭২৭ শাসনকাল) প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে বরেন্দ্রী ব্রাহ্মণ রঘুনন্দন তার ছোট ভাই রামজীবনের নামে এতদ অঞ্চলে জমিদারী প্রতিষ্ঠা করেন। ১৭১০ সালে রাজা রামজীবন এখানে রাজধানী প্রতিষ্ঠা করেন। সময়ের কালক্রমে এখানে ধীরে ধীরে মন্দির,প্রাসাদ, উদ্যান ইত্যাদির দ্বারা সুসজ্জিত রাজবাড়ী তৈরি হয়। এর পরে নাটোর রাজ্য উন্নতির চরম শিখরে পৌছে । রাজা রামজীবনের দত্তক পুত্র রামকান্তের স্ত্রী রাণী ভবানীর রাজত্বকালে ১৭৮২ সালে ক্যাপ্টেন রেনেল এর ম্যাপ অনুযায়ী রাণী ভবানীর জমিদারীর পরিমাণ ছিল ১২৯৯৯ বর্গমাইল। পাঠান, মুঘল, ইংরেজি শাসন, পাকিস্তানি শাসন ইতিহাসে যুগে যুগে শোষণ বঞ্চনা আর নির্যাতনের বিরুদ্ধে আত্ম অধিকার প্রতিষ্ঠার সংগ্রামের উল্লেখযোগ্য স্মৃতি হয়ে আছে এই জেলা।

এ জেলার পশ্চিমে রাজশাহী জেলা ,পূর্বে সিরাজগঞ্জ ও পাবনা জেলা, দক্ষিনে কুষ্টিয়া জেলা ও পাবনা জেলার কিছু অংশ,এর উত্তরে বগুড়া জেলা ও নওগাঁ জেলা অবস্থিত।


তাহলে চলুন বন্ধুরা এক নজরে জেনে নেয়া যাক সংক্ষিপ্ত ভাবে নাটোর জেলা সম্পর্কে ::

আয়তন: এই জেলাটির মোট আয়তন: ১,৯০৫.০৫ বর্গকিমি (৭৩৫.৫৪ বর্গমাইল)।  আয়তনের দিক দিয়ে নাটোর জেলা বাংলাদেশের ৩৫ তম জেলা। উত্তরবঙ্গের আটটি জেলার মধ্যে  অন্যতম একটি জেলা নাটোর জেলা।


প্রতিষ্ঠা:  (১৭১০-১৮২৫) পরবর্তী (১৯৮৪- বর্তমান)। এই জেলাটি প্রথমে প্রতিষ্ঠিত হয় ১৭১০ সালে এবং পরবর্তীতে এটি ভেঙে ফেলা হয় ১৮২৫ সালে। ১৯৮৪ সালে নতুন ভাবে গঠিত হওয়ার পর থেকে বর্তমান পর্যন্ত রয়েছে।

জনসংখ্যা: ২০২১ সালের আদমশুমারি এর তথ্য অনুযায়ী - মোট জনসংখ্যা ১,৭০৬,৬৭৩ জন । পুরুষ: ৮,৫৪,১৮৩ জন, মহিলা ৮,৫২,৪৯০ জন।

বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী জনসংখ্যা : 

মুসলিম : ১,৫৯০,৯১৯ জন (৯৩.২২%),

হিন্দু : ১,০৩,৭৪৭ জন (৬.০৮%),
খ্রিস্টান :৮,০৫৮ জন (০.৪৭%),
বৌদ্ধ : ৭ জন (০.০০%),
অন্যান্য : ৩,৯৪৬ জন (০.২৩%),
বার্ষিক জনসংখ্যার বৃদ্ধির হার ১.৪০% ।
বার্ষিক জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার অনুযায়ী ২০১৬ সালের অনুমিত জনসংখ্যা ১,৮২৬,১৪০ জন।

জনসংখ্যার ঘনত্ব :  ৯৬০/বর্গকিমি (২,৫০০/বর্গমাইল)।

শিক্ষার হার :  ৬৫% 

সাক্ষরতার হার:  ৭০% প্লাস।

পোস্ট কোড: ৬৪০০
 
প্রশাসনিক বিভাগের কোড: ৫৯ ৬৯

ভোটার সংখ্যা: ১,০৫০,২৭৩ জন,পুরুষ ৫,১৪,১৮৬ জন, মহিলা ৫,৩৬,০৮৭ জন

নির্বাচনে ভোটার এলাকা ৪ টি:
নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া)-৫৮,
নাটোর-২ (নাটোর সদর - নলডাঙ্গা)-৫৯,
নাটোর-৩ (সিংড়া)-৬০,
নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম)-৬১

উপজেলা সাতটি : নাটোর সদর, সিংড়া, গুরুদাসপুর, বড়াইগ্রাম, লালপুর, বাগাতিপাড়া, নলডাঙ্গা।

থানা সাতটি : নাটোর সদর ,সিংড়া, গুরুদাসপুর, বড়াইগ্রাম, লালপুর, বাগাতিপাড়া, নলডাঙ্গা।

পেীরসভা আটটি : নাটোর সিংড়া ,গুরুদাসপুর ,বড়াইগ্রাম ,বনপাড়া ,গোপালপুর ,বাগাতিপাড়া ,নলডাঙ্গা।

ইউনিয়ন ৫২ টি : নাটোর সদরের সাতটি সিংরাই বারোটি গুরুদাসপুরে 6t বড়াইগ্রামে সাতটি লালপুর বাগাতিপাড়া পাঁচটি নলডাঙ্গা পাঁচটি।

স্কুল : সরকারি ও বেসরকারি ৫৫৩ টি, নিম্নমাধ্যমিক ৬৩ টি,মাধ্যমিক ২৫৮ টি ,দাখিল মাদ্রাসা ১২১টি , কমিউনিটি বিদ্যালয় ৩৭ টি

কলেজ আছে : সরকারি-বেসরকারি দিয়ে ১০৬ টি মাদ্রাসা আলিম ফাজিল কামিল 26 টি

মৌজা :আছে বারোশো ৬৫ টি

নদ নদী : পদ্মা নদী , নারদ নদ ,তুলশীগঙ্গা নদী ,মুসাখান, নন্দকুঁজা, বারনই, গোদাই, বড়াল, খলিসাডাঙ্গা, গুনাই, চলনবিল,হালতির বিল সহ অসংখ্য খাল বিল রয়েছে।

স্বাস্থ্য : জেলা হাসপাতাল রয়েছে একটি ,উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স রয়েছে পাঁচটি ,ইউনিয়ন পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র রয়েছে ৩০ টি, ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১৫টি ,কমিউনিটি ক্লিনিক রয়েছে ১৫৯টি, বেসরকারি ক্লিনিক রয়েছে ৪৩ টি।

জেলা কারাগার রয়েছে ১ টি, 
 
যোগাযোগ ব্যবস্থা সড়ক ও রেলপথ। 
একটি সেনানিবাস রয়েছে কাদিরাবাদ সেনানিবাস দয়রামপুর ,বাগাতিপাড়া।

অর্থনীতি: এই জেলার প্রধান অর্থনৈতিক ফসল হলো ধান। এছাড়াও এখানে রসুন, ইক্ষু, গম, ভুট্টা, আঁখ, পান ইত্যাদি উৎপাদিত হয়। এখানে বেশ কয়েকটি ভারী শিল্প কারখানা রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে দুটি চিনিকল, প্রাণ জুস এর কারখানা ,চামড়া প্রক্রিয়াকরণ এলাকা চামড়াপট্টি, জুট মিল ,পদ্মা অয়েল সংরক্ষণ ইত্যাদি। বাংলাদেশের 16 টি চিনির জলের মধ্যে দুটি রয়েছে এই জেলায়। এছাড়া মূলত উৎপাদিত আঁখের উপড় নির্ভর করে পার্শ্ববর্তী রাজশাহী পাবনা জেলায় গড়ে উঠেছে আরো দুটি চিনিকল। তাছাড়া বাংলাদেশের বৃহত্তম প্রাণ কোম্পানির বেশিরভাগ কাঁচামাল যেমন; আম ,লিচু, বাদাম, মুগডাল ,সুগন্ধি চাল ইত্যাদি নাটোর জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসে। সম্প্রতি এখানে আপেলকুল, বাউ কুল ইত্যাদি ফলের চাষাবাদ ও ব্যবসা রয়েছে।

বিনোদন/চিত্রাকর্ষক স্থান:
উত্তরা গণভবন-দিঘাপতিয়া রাজবাড়ি,পদ্মার তীর ,পদ্মার চর লালপুর,গ্রীনভ্যালী পার্ক লালপুর,শহীদ সাগর গোপালপুর-লালপুর,বুধপাড়া কালীমন্দির লালপুর, ভেল্লাবাড়ী লালপুর
গোঁসাই আশ্রম লালপুর, রানী ভবানী রাজবাড়ি-জমিদার বাড়ি,চলনবিল, হালতির বিল,নড়াইল জমিদার বাড়ি ,আত্রাই নদী , চলনবিল জাদুঘর ইত্যাদি।
 

নাটোর জেলার দর্শনীয় স্থান,নাটোর জেলার খবর,নাটোর কিসের জন্য বিখ্যাত,নাটোর জেলার লালপুর থানা,natore zamindar,natore rajbari picture,bengali zamindars list,banalata sen poem pdf, bonolota sen poem summary in bengali,bonolota sen picture,natorer bonolota sen photo,bonolota sen kabyagrantha,banalata sen quotes,banalata sen poem in english,banalata sen recitation,
নাটোর জেলার লালপুর পদ্মার চড় 👈

এছাড়াও  এই জেলার বিভন্ন ঐতিহ্যময় স্থান : 
১। উত্তরা গণভবন,
২। নাটোরে দিঘাপতিয়া রাজবাড়ী,
৩। চলনবিল,
৪। বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম চিনি কল (গোপালপুর নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস; লালপুর উপজেলায় অবস্থিত), 
৫। দয়ারামপুর রাজবাড়ী।
 
পরিচিত ব্যক্তিবর্গ : 
শহীদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ: বাংলাদেশ সংসদীয় সদস্য আওয়ামী লীগ,
জনাব ফজলুর রহমান পটল (বাংলাদেশ সংসদের সদস্য জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি),
 জুনায়েদ আহমেদ পলক :রাজনীতিবিদ, (বাংলাদেশ সংসদের সদস্য আওয়ামী লীগ),
 আমজাদ খান চৌধুরী বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আরএফএল গ্রুপ,
 ফরিদা পারভীন- লালন শিল্পী,
 আবু হেনা রনি- উপস্থাপক ও মডেল,
 তাইজুল ইসলাম- বাংলাদেশে ক্রিকেটার।
 
তাহলে বন্দুরা আজ আর নয় এখানেই শেষ করি আমাদের নাটোর জেলা নিয়ে সংক্ষিপ্ত তথ্য বিবরণী। 
 
সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। ................. 

কোন মন্তব্য নেই

Welcome to https://www.tipscyber.com
And Thanks for visiting our website.